বেকিং সোডা দিয়ে কিভাবে ছাড়পোকা ধ্বংস করা যায় জেনেনিনি – একধুম পুরো বাড়ী থেকে!

বেকিং সোডা দিয়ে কিভাবে ছাড়পোকা ধ্বংস করা যায় ?

বেকিং সোডা একটি খুব সাধারণ রান্নাঘরের আইটেম, তবে এটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে। জেনেনিন বেকিং সোডা এর সুবিধা: বেকিং সোডা এর ২০টি দরকারী ব্যবহার। এছাড়াও, এটি কার্যকরভাবে ছাড়পোকা ধ্বংস করার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

আমরা পেশাদার এক্সটারমিনেটরের সাহায্যে ছাড়পোকা হত্যার পরামর্শ দিলেও তা অত্যন্ত ব্যয়বহুল হওয়ায় বেশিরভাগ লোকেরাই কিছু কম ব্যয়বহুল উপায় অনুসন্ধান করেন। তাই আমরর তাদেরকে সহায়তা করার জন্য এখানে একটি ঘরুয়া পদ্ধতি বর্ণনা কেরেছি যা অত্যন্ত সহযলভ্য এবং কম ব্যয়বহুল।

এই পদ্ধতিটি শুরু করতে আপনার নিম্নলিখিত জিনিসগুলির প্রয়োজন হবেঃ

০১। বেকিং সোডা

০২। ভ্যাকুয়াম ক্লিনার

০৩। বোল

০৪। পেইন্টব্রাশ এবং হার্ডব্রাশ

০৫। ফ্লাশ লাইট

কিভাবে বেকিং সোডা ব্যবহার করবেন?

০১। প্রথমে আপনার বাড়ির সমস্ত জায়গা সনাক্ত করুন যেখানে ছাড়পোক থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। জিবিত বা মৃত ছাড়পোকা, তাদের ডিম, শরীরের অংশ বা মল সন্ধানের জন্য প্রতিটি যায়গায় ফ্ল্যাশ লাইট দিয়ে যত্নসহকারে পরীক্ষা করুন। এগুলিই হ’ল ছাড়পোকার উপদ্রব নিশ্চিত করার লক্ষণসমুহ।

০২। এবার জেনেরাখুন এরা আপনার চোখেকে ফাকি দিতে খুবই পারদর্শী। তাই সমস্ত আক্রান্ত যায়গা থেকে আবর্জনা ও বিশৃঙ্খলাগুলি সরান। তবে আক্রান্ত জিনিসগুলিকে কখনও কোনও ভাল যায়গায় স্থানান্তর করবেন না। কারন এতে আপনার ভাল যায়গাগুলিও ছাড়পোকায় আক্রান্ত হয়ে পড়বে। বেকিং সোডা প্রয়োগ করার আগে সমস্ত জায়গা পরিষ্কার করুন যাতে সহযেই তা প্রয়োগ করা যায়। আর শক্ত আবর্জনা দূর করতে একটি শক্ত তারের ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন।

০৩। এবার আপনার পেইন্ট ব্রাশটিকে বোলে রাখা বেকিং সোডার ভিতরে ঢুকিয়ে দিন। পেইন্ট ব্রাুশের মাধ্যমে বেকিং সোডার একটি পাতলা স্তর ছড়িয়ে দিন যেখানেই আপনি ছাড়পোকার আক্রমণ খুঁজে পেয়েছেন। সাধারণত, বিছানার-ফ্রেম, বিছানার বডি, মেট্রেস এবং কার্পেট সহযেই ছাড়পোকায় আক্রান্ত হয়। সুতরাং সোফা, গদি, কার্পেট এবং কোনও ফাটল থাকলে সেখানে বেকিং সোডা ভালভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দিন।

০৪। অবশেষে, বেশ কিছুদিন দিন পরে বা আপনি যখন নিশ্চিত হন যে সমস্ত ছাড়পোকা মারা গেছে তখন সমস্ত জায়গা থেকে বেকিং সোডা উঠিয়েনিন। আর এই কাজের জন্য ভ্যাকুয়াম ক্লিনারই একমাত্র উপযুক্ত। কারণ কার্পেট, বিছানার ফাটল বা ফাক থেকে বেকিং সোডা সহ মৃত ছাড়পোকাগুলিকে বের করে আনার জন্য ইহা খুবই উপযুক্ত। কয়েক সপ্তাহ পরে আপনাকে আবর একই পদ্ধতিটি পুনরায় প্রয়োগ করতে হবে।

টিপস্ এবং সতর্কতা

০১। এই পদ্ধতিতে যথেষ্ট সময় লাগলেও ছাড়পোকা মারার জন্য এটি খুবই সহজ এবং অর্থ সাশ্রয়ী উপায়।

০২। মনেরাখবেন, পেশাদার এক্সটারিনেটরের মাধ্যমে এমনকি প্রচুর পরিমাণে বিষাক্ত রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করেও ছাড়পোকা একেবারে নির্মূল করা খুবই কঠিন কাজ। সুতরাং, আপনাকে বছরে কয়েকবার এই প্রক্রিয়াটি পুনরায় প্রয়োগ করতে বিরক্ত হবেন না।

০৩। আপনার এই পদ্ধতিটি একইসাথে বাড়ির সমস্ত আক্রান্ত স্থানে প্রয়োগ করা উচিত। অন্যথায়, আপনার প্রয়োগকৃত জায়গাটি অপ্রয়োগকৃত জায়গা থেকে সংক্রামিত হতে পারে অর্থাৎ ছাড়পোকায় আক্রান্ত করে ফেলবে। আর এতে আপনাার সমস্ত প্রচেষ্টাই ব্যর্থ হয়ে যাবে।

error: Content is protected !!